রাজ্যে আবার বাড়লো ক’রোনার সং’ক্রমণ! আজ থেকে ২রা নভেম্বর পর্যন্ত বাস এবং অটো বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিল এই জেলা!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমরা দেখেছিলাম যে বেশ কিছুদিন আগে অব্দি যেভাবে বেড়ে গিয়েছিল করোনা মহামারী দাপট তাতে রীতিমতন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল সমস্ত গণপরিবহন গুলিকে। পাশাপাশি বন্ধ করে দেয়া হয়েছিল সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে। এমনকি আরো বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পরিষেবাগুলি। কিন্তু পরিস্থিতি কিছুটা ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হওয়ার সাথে সাথে নিয়ম বিধি মেনে ধীরেসুস্থে বিধিনিষেধের উপর ছাড় দেওয়া হচ্ছিল।

তার পরেই চলে এলো বাঙালির শ্রেষ্ঠ পুজোর দুর্গাপূজার। করোনা বিধি মেনে দুর্গা পুজো করার অনুমতি দিয়েছিল রাজ্য সরকার ।কিন্তু সেই বিধি মানতে দেখা যায়নি কাউকে। তবে শুধুমাত্র দুর্গাপুজোকে দোষ দিলে চলবে না। তার পাশাপাশি সাধারণ দিনে যদি আমরা রাস্তাঘাটে বাজারে চিত্র দেখি তাহলে খুব একটা হয়তো অবাক হওয়া কথা নয়।

কারণ সেখানেও প্রতিনিয়ত ঘুরে বেড়াচ্ছে হাজার হাজার মানুষ তাও আবার বিনা মাস্ক এ।এমতাবস্থায় সংক্রমণ যার তীব্র আকার ধারণ করবে সেটা আগে থেকে অনুমান করা গিয়েছিল এবং সেই চিত্র দেখা গেল পশ্চিম মেদিনীপুরে। তাই পশ্চিম মেদিনীপুরে বন্ধ করে দেয়া হলো পুনরায় গণপরিবহন ব্যবস্থা। পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হওয়ার জন্য নাইট কারফিউ তে দেওয়া হয়েছিল বিশেষ ছাড়।

কিন্তু পশ্চিম মেদিনীপুরের সংক্রমণ আরো তীব্র আকার ধারন করার জন্য পুনরায় নড়েচড়ে বসেছে জেলা প্রশাসন এবং আগামী ২ রা নভেম্বর সম্পূর্ণভাবে বন্ধ গণপরিবহন ব্যবস্থা গুলি। ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি জায়গাকে কন্টেন্টমেন্ট করে দেওয়া হয়েছে এবং এই মাইক্রো কন্টেন্টমেন্ট এরিয়াতে সম্পূর্ণভাবে বন্ধ থাকছে বাস বা অন্যান্য কোন কোন পরিবহন ব্যবস্থা।জানানো হয়েছে শর্তসাপেক্ষে শুধুমাত্র সরকারি কর্মচারীরাই বিশেষ প্রয়োজনে সেখানে যাওয়ার অনুমতি পাবেন।

Back to top button