ছোট শিশুদের জ্ব’র বা স’র্দি-কা’শি হওয়ার পর এই 3 টি লক্ষণ দেখলেই যোগাযোগ করুন ডাক্তারের সঙ্গে! অবহেলা করলেই বিপদ! জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- মহামারীর প্রথম এবং দ্বিতীয় ঢেউ এর পাশাপাশি পুজোর প্রাক্কালে শুরু হয়েছে এক অজানা জ্বর । এবং এই অজানা জ্বর প্রথম আ-ক্রমণ করছে একদম ছোট শিশুদেরকে । যার ফলে চিন্তিত হয়ে পড়েছে চিকিৎসক মহল থেকে শুরু করে অভিভাবকরা । একাধিক জেলা হাসপাতালগু-লিতে ক্রমশ বেড়েই চলেছে এই সমস্ত শিশুর সংখ্যা । অভিভাবকরা বুঝতে পারছে না যে এটি ভাইরাল ফিভার নাকি মা-রাত্মক প্রা-ণঘা-তি কোন ভা-ইরাসের আ-ক্রমণ ।

কি কি লক্ষণ দেখা দিলে আপনি আপনার বাচ্চাকে বিন্দুমাত্র বাড়িতে ফেলে রাখবেন না তা জানাবো আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে । করোনা মহামারীর কবলে পড়ে রীতিমতো দিশেহারা হয়ে গেছে গোটা দেশ তথা পৃথিবী । প্রথমবারের মতন যখন এর প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছিল তখন তড়িঘড়ি করে ব্যবস্থা নিয়েছিলো চিকিৎসক মহল । কিন্তু কোন রকম ভাবে আটকানো সম্ভব হয়নি এই মহামারী কে । যার ফলে প্রথম ঢেউ এর পরিবর্তে এসেছিল দ্বিতীয় ঢেউ ।

আমরা জানি যে দ্বিতীয় ঠিক কতটা ভ-য়ঙ্কর হয়েছিল । উত্তরবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলাতে বিপুল হারে দেখা যাচ্ছে এই অজানা জ্ব-রের রো-গীর সংখ্যা । তেমন কোনো প্রাদুর্ভাব না দেখা দিল বীভৎস পরিমাণে জ্ব-র আসছে । তার সাথে সাথে পেটে ব্যথা বমি এবং পাতলা পায়খানা উপসর্গ নিয়ে প্রতিনিয়ত ভর্তি হচ্ছে একাধিক শিশু এবং যত সময় যাচ্ছে ততই বাড়ছে তার সংখ্যা । এব্যাপারে চিকিৎসকেরা চিন্তিত । তার সাথে সাথে চিন্তিত বাড়ির মা-বাবারা।

কি করবেন এই মুহূর্তে এবং কি করবেন না তার একটা রূপরেখা দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা । আপনার বাচ্চা যদি এখনও পর্যন্ত মাতৃস্তন্য দুগ্ধ পান করে তার বিশেষভাবে নজর রাখতে হবে বাচ্চার দিকে । যদি মায়ের কোন কারনে সর্দি হয় তাহলে বাচ্চার থেকে দূরে থাকার পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিৎসকেরা । অতি অবশ্যই মায়ের দুধ খাওয়াতে পারেন । কারণ দুধের মাধ্যমে কোন ভা-ইরাস ছড়ায় না ।

যদি একান্তই বাধ্য হয়ে ছেলের কাছে সন্তানের কাছে যেতে হয় তাহলে অতি অবশ্যই দুটি মাস্ক ব্যবহার করবেন । সব সময় স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধুয়ে তবেই শিশুকে স্পর্শ করবেন । যদি দেখেন যে খাবার দাবার প্রস্রাব আগের তুলনায় ৫০% হ্রাস পেয়ে যাচ্ছে দ্রুত পরিমাণে তাহলে বিন্দুমাত্র দেরি না করে সরাসরি চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া প্রয়োজন হলে ভর্তি করুন হাসপাতালে ।

Back to top button