একদম হালকা ওজনের মধ্যে আধুনিক ডিজাইনের সোনার ব্রেসলেটের ৯টি দুর্দান্ত কালেকশন দেখে নিন!

নিজস্ব প্রতিবেদন:- যেকোনো উৎসব অনুষ্ঠান হোক বা বিয়ে বাড়ি সবকিছুতেই কিন্তু সোনার গয়না মুখ্য ভূমিকা পালন করে থাকে। তবে বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে কিন্তু যেভাবে হলুদ ধাতুর দাম বৃদ্ধি পেয়ে চলেছে সাধারণ মানুষের পক্ষে আর সোনা কেনা সম্ভব হচ্ছে না। পুরুষ থেকে মহিলা সকলেই কিন্তু কম-বেশি সোনার গয়না পড়তে পছন্দ করেন।

আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা নিয়ে চলে এসেছি তাই এমন কিছু সোনার ব্রেসলেটের ডিজাইন যা কমবেশি সব মহিলাদেরই কিন্তু পছন্দ হবে। মূল্য বৃদ্ধির বাজারেও যারা মোটামুটি গয়না কিনে থাকেন বা কেনার কথা ভাবছেন তাদের জন্যই আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদন। সামনেই রয়েছে দুর্গাপুজো, ধনতেরাস এবং দীপাবলির মতন বেশ কয়েকটি বড় উৎসব। সুতরাং সোনার গয়না কেনার জন্য এর থেকে ভালো সময় কিন্তু আর হতে পারে না।

  • বিশেষ কিছু সোনার ব্রেসলেট এর ডিজাইন:

১) প্রতিবেদনের শুরুতেই যে ব্রেসলেটের ডিজাইন টি দেখতে চলেছেন সেটার মাঝখানে খুব সুন্দর ফ্লাওয়ারশেপে কাজ করা রয়েছে এবং দু’ধারে অনেকটা শাখার উপরে যেরকম চওড়া পাতের কাজ থাকে সেরকম কাজ রয়েছে।

২) এবার যে ডিজাইনটি আপনারা দেখছেন সেটার মাঝখানে ফুল এবং দুই ধারের মুখে অনেকটা প্রদীপের মতন করে ডিজাইন করা রয়েছে। বেশ সুন্দর আর ইউনিক একটা ডিজাইন।

৩) এবার যে ডিজাইনটি আপনারা দেখছেন সেটা অনেকটা হাত ঘড়ির মতন ডিজাইন করা হয়েছে। দারুন একটা কালেকশন, আপনারা কিন্তু অবশ্যই বিয়ের দিনে ট্রাই করতে পারেন।

৪) এবার যে কালেকশনটি দেখছেন সেটাও অনেকটা ফুলের মতন তৈরি করা রয়েছে দুই ধারে খুব সুন্দর ঝিলে কাটা কাজ রয়েছে।

৫) যারা ব্রেসলেটের মাঝারি ডিজাইন টা একটু ছোটর মধ্যে নিতে চান তারা অবশ্যই এটা ট্রাই করে দেখতে পারেন। খুব সাধারন ডিজাইনের মধ্যে এই ব্রেসলেট টি কিন্তু আপনাদের দারুন লাগবে।

৬) এবার যে ডিজাইনটি দেখছেন সেটা অনেকটা ছড়িয়ে বরফির মতন করে তৈরি করা রয়েছে। উপরে খুব সুন্দর ধানের ছড়ার মতন কাজ রয়েছে তা দারুন দেখতে লাগছে।

৭) আমাদের প্রতিবেদনের ৭ নম্বরে যে ডিজাইনটি আপনাদের দেখাতে চলেছি সেটাও অনেকটা আগের ডিজাইনটার মতনই তবে এটা সামান্য চওড়া। দুই পাশে খুব সুন্দর চেনের মতন করে কাজ করা রয়েছে।

৮) এবার যে ডিজাইনটি আপনারা দেখতে চলেছেন সেটাকে দেখলে এক ঝলকে মনে হবে হাত ঘড়ি। অসাধারণ একটা ডিজাইন দুই ধারে বেশ চওড়া প্রকৃতির সোনার কাজ করা রয়েছে।

৯) আজকের প্রতিবেদনের সব শেষে যে ডিজাইনটি আলোচনা করব সেটা খুবই সাধারণ আর ইউনিক একটা ডিজাইন। আপনারা হয়তো ভাবছেন ইউনিক কেন বলা হলো! আসলে ডিজাইনটির মধ্যে খুব সুন্দর ভাবে একটা স্টোন বসানো রয়েছে যা এটা কে ইউনিক আর আকর্ষণীয় করে তুলেছে।

প্রসঙ্গত আজকের শেয়ার করা ডিজাইন গুলির মধ্যে আপনাদের কোনটা ভালো লাগলো তা অবশ্যই স্ক্রিনশট করে আমাদেরকে জানাতে ভুলবেন না। প্রত্যেকটা ডিজাইন কিন্তু মোটামুটি ২২ থেকে ৩০ হাজার টাকার মধ্যে আপনারা তৈরি করে নিতে পারবেন। তবে দৈনন্দিন সোনার দরের পরিবর্তন হলে কিন্তু উল্লেখ করা দাম অনেকটাই আলাদা হতে পারে।

Back to top button