নতুন ইলেকট্রিক স্কুটার ও বাইক নিয়ে আবার ভারতের বাজারে ফিরতে চলেছে LML! জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন:- ৯০ দশক বা সেই সময়কালে বাইক স্কুটার এর প্রচলন ছিল ব্যাপক পরিমাণে । বাইকের তুলনায় স্কুটার গুলো বেশি মাত্রায় দেখা যেত রাস্তাঘাটে । এবং যদি আপনি ভালো করে লক্ষ্য করে দেখেন যে সেই সমস্ত স্কুটার গুলির মধ্যে বেশিরভাগই ছিল এল এম এল কোম্পানির ।গোটা ভারতবর্ষের বাজার একচেটিয়া অধিকার স্থাপন করেছিল এই কোম্পানি ।

কিন্তু হণ্ডা অ্যাক্টিভা এই দুটি কম্পানি গাড়ি স্কুটার বাজারে আসার পর থেকে আর্থিক মন্দা ভুগতে থাকে এই সংস্থা । অবশেষে ২০১৭ সালের সম্পূর্ণ রকম ভাবে বন্ধ হয়ে যায় কোম্পানি । কিন্তু আরো একবার মাথাচাড়া দিয়ে নতুন অবতারে উত্তীর্ণ হতে চলেছে এই পুরোনো স্কুটার সংস্থা। । বর্তমানে এই স্কুটার সংস্থার তরফ থেকে এমনটা জানানো হয়েছে যে বর্তমানে যে সমস্ত ইলেকট্রিক স্কুটার বাইক রয়েছে সেগুলি সাধারণ মধ্যবিত্ত মানুষের ধরাছোঁয়ার বাইরে ।

তার পাশাপাশি অনেক মানুষ এই সমস্ত স্কুটার গুলিকে সন্তুষ্ট হতে পারছে না। কারণ সেখানে থাকছে না মনের পছন্দ মতন কিছু ফিচারস তবে সম্প্রতি তারা খুব শীঘ্রই ইলেকট্রিক স্কুটার এবং বাইক নিয়ে হাজির হবে পুনরায় ভারতের বাজারে এবং এই সমস্ত তারগুলো বাকি সমস্ত ইলেকট্রিক স্কুটার গুলিকে টাকা দেবে এ ব্যাপারে নিশ্চিত তারা । এমনকি এর দাম হবে সাধারণ মধ্যবিত্ত মানুষের মধ্যে ডিজাইন হবে অত্যন্ত আধুনিক এবং রং এর দিক থেকে কোনো রকম কোনো চিন্তা-ভাবনা করতে হবেনা গ্রাহকদেরকে ।।।

কোম্পানির ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং সিইও যোগেশ ভাটিয়া বলেছেন, “ফিরে আসার বিষয়ে আমরা খুবই উচ্ছ্বসিত এবং আমাদের আসন্ন গাড়িগুলির লুক ও ডিজাইন অত্যাধুনিক হবে। আগামী দিনে আমরা মধ্যবিত্তদের আরও ভালো এবং সাশ্রয়ী যাতায়াতের বিকল্প প্রদান করার চেষ্টা করছি। আমরা খুব শীঘ্রই বৈদ্যুতিক স্কুটার এবং বাইক লঞ্চ করতে চলেছি।”

এই স্কুটার ও বাইকগুলি আগামী বছরের প্রথম দিকেই লঞ্চ করা হবে বলে তিনি জানান। এমনকি আগামী তিন থেকে পাঁচ বছরের মধ্যে কোম্পানির তরফে প্রায় এক হাজার কোটি টাকা লগ্নি করার কথাও ঘোষণা করা হয়েছে। পুরনো যুগের গ্রাহকরা এখনো পর্যন্ত অধীর আগ্রহে অপেক্ষা রত কবে ভারতের বাজারে নতুন ভাবে নতুন অবতার আসতে চলেছে এই কোম্পানির ইলেকট্রিক স্কুটার ।

Back to top button