চেয়ার পেতে পুকুরের ধারে বসেছিলেন যুবক, হটাৎ পিছনে পা দিয়ে যুবককে ধা-ক্কা মা-র’তেই নিজেই প-ড়ে গে-লে’ন যুবতী, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- বর্তমানের এই সোশ্যাল মিডিয়াতে সামাজিক-রাজনৈতিক ঘটনার পাশাপাশি হাসির ভিডিও লক্ষ্য করা যায় । মানুষ আজকাল হাসতে ভুলে গেছে । বিভিন্ন কাজের চাপে বা বিভিন্ন ঘটনার ফলে অ-ব-সা-দগ্র-স্ত হয়ে পড়ছে ধীরে ধীরে এই মনুষ্য প্রজাতি। তাই মুখ থেকে হারিয়ে যাচ্ছে প্রত্যেকের হাসি। এবং এই হাসি ফিরিয়ে আনতে সোশ্যাল মিডিয়া কিন্তু একটি মহা ও-ষু-ধের মতো কাজ করে।

আমরা এর আগে বিভিন্ন হাসি মজার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে দেখে থাকবো । সেখানে যেমন আমরা দেখতে পাই যে নারকেল গাছের পাতা ধরে ঝু-লতে গি-য়ে জলের মধ্যে প-ড়ে যাওয়া যুবতীকে ঠিক তেমনি দেখতে পায় যে ম-দ খে-য়ে সাইকেল চালানোর চেষ্টা করা এক ব্যক্তিকে । তবে সব ঘটনা তুলে ধরা সম্ভব নয় । এরকম প্রচুর ঘটনার উদাহরণ রয়েছে । কিন্তু এবারে যে ঘটনাটি ঘটতে দেখা গেল সেটি রীতিমত অ-বাক ক-রার ম-তন ।

মানুষ যেন কোথাও বর্তমান পরিস্থিতিতে হাসতে ভুলে গেছে এবং সে হাসানো দায়িত্ব নিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া ।সামাজিক রাজনৈতিক ঘটনা পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের হাসি মজার ভিডিও আমরা দেখে থাকি সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে । সম্প্রতি দেখা গেল আরো একবার ।সম্প্রতি ইউটিউবে বেশ কয়েকটি হাসির মজার ভিডিও একত্রিত করে একটি ভিডিও আকারে প্রকাশ করা হয়েছে ।

কিন্তু সেখানে মধ্যে যে ঘটনাটি সবথেকে বেশী হাস্যকর পরিবেশ সৃষ্টি করেছে সেটি হল যে এক যুবক নদীর পাড়ে বসে ছিল মাছ ধরার জন্য । কিন্তু তার পিছন দিক থেকে অন্য এক যুবক তাকে ধা-ক্কা দি-তে এসেছিল । তখন সে লক্ষ্য করে যে সেই যুবকের পাশে পড়ে রয়েছে মাছ ঢোড়ার দণ্ড টি । যার ফলে সে আর লো-ভ সা-মলাতে পা-রেনি । যখনই সে দন্ড ধরে মাছটিকে টানার চেষ্টা করছিল তখনই হঠাৎ করেই সে সামনে অর্থাৎ ন-দীর জ-লে প-ড়ে যায় । তারপর জল বরাবর কেউ যেন তাকে টে-নে নি-য়ে চলে যাচ্ছে এমন একটা পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছিল ।

কিন্তু আদতে সেটি যে মাছ ছিল না অন্যকিছু কি ছিল সেটি আর নতুন করে বলার অপেক্ষা রাখে না । পরবর্তী ক্ষেত্রে দেখা যায় এক ছোট্ট বাচ্চা নৌকা নিয়ে ঘোরাফেরা করছিল সেই নদীতে এবং তারই সহযোগিতায় যুবকটি কোন কারনে বেচে ফেরে । ইতিমধ্যে সেই ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়েছে নেটদুনিয়ায় সর্বত্র ।এসেছে প্রচুর হাসির মন্তব্য। তার পাশাপাশি শেয়ার করে রেখেছেন অনেকেই নিজেদের টাইমলাইনে ।

Back to top button