“কোভিডের নামে মানুষের মধ্যে আ-তঙ্ক সৃষ্টি করবেন না”- বললেন বিজেপির শমীক ভট্টাচার্য!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- পুনরায় দেশজুড়ে শুরু হয়েছে করোনা দ্বিতীয় ঢে-উ এর প্র-ভাব । এবারের ঢেউ এর প্রভাব প্রথম বারের তুলনায় যথেষ্ট পরিমাণে বেশি । লা-গা-মছাড়া ভাবে বেড়ে চলেছে প্রতিনিয়ত দেশে আ-ক্রা-ন্তের সং-খ্যা এবং মৃ-তের সং-খ্যা । পাশাপাশি পুড়ছে কয়েকশো লাশ ।ভারত বর্ষ যেন আর ভারত বর্ষ নেই মৃ-ত্যু-পু-রীতে প-রিণত হয়েছে । এমতাবস্থায় মানুষ কি করবে তা বুঝে উঠতে পারছে না ।তবুও কিন্তু সচেতন হচ্ছে না কেউই ।আর এই অসচেতনতার কবলে পড়ে প্রাণ হারাচ্ছেন অনেকে । আবার অনেকে আ-ক্রান্ত হচ্ছেন ।

শুধুমাত্র আক্রান্ত হচ্ছে এমন কিন্তু নয় এমনকি এমন পরিস্থিতি এসে দাঁড়িয়েছে যেখানে চি-কিৎসার অ-ভাবে মা-রা যে-তে হচ্ছে অনেককে । শেষ হয়ে আসছে ওষুধপত্র অক্সিজেন ইত্যাদি ।যদি ইতিমধ্যে বিভিন্ন সংস্থা অক্সিজেন সাপ্লাই দেওয়ার কথা উল্লেখ করেছে । কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকার বিভিন্ন ছলচাতুরীর মাধ্যমে কোথাও যেন ভাতে মারতে চাইছে এই বাংলাকে ।

ইতিমধ্যে করোনা নিয়ে রাজনীতি শুরু হয়েছে এ মনটা গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে খবরের আ-নাচে-কা-নাচে । বাস্তবে কি ঠিক তেমনি হচ্ছে? শা-সক দ-ল বিরোধী দল কি ক্ষ-ম-তার লোভে পরে মানসিকতাকে হা-রিয়ে ফে-লেছে ? এরকম হাজার হাজার প্রশ্ন ঘোরাফেরা করছে প্রচুর মানুষের চোখে মুখে । তারা জানতে চাইছি উত্তর কি? কিভাবে মিলবে এর থেকে রেহায় কেমন ভাবে মানুষ রেহায় পাবে এই অ-তি মা-রির থেকে? উত্তর নেই কারোর কাছে শুধু আছে প্রশ্ন । এই ভ-য়া-বহ পরিস্থিতিতে মানুষকে একসাথে থাকতে হবে একে অপরের সাহায্যে এগিয়ে আসতে হবে ।

কিন্তু রাজ্যের বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্য একটি সাংবাদিক বৈঠকে বলেন যে করোনা নিয়ে ভারতীয় জনতা পার্টি কোনো রকম কোনো রাজনীতি এর আগে করেনি এখনো করবেনা ।রাজ্য যদি চাই করোনা এর সাথে লড়াই করতে সরকারের কোনো সাহায্যের দরকার তাহলে সরকার সর্বতোভাবে প্রস্তুত আছে রাজ্যকে সাহায্য করার । কিন্তু গু-জব ছ-ড়ানো চলবে না ।এই গু-জবে কান দিয়ে অনেকেই ভুল প্রচার করছেন ।ইতিমধ্যে শমীক ভট্টাচার্যের এই কথাটি সৃষ্টি করেছে জ-ল্পনা । আবার তার পাশাপাশি দলীয় কর্মীদের মনে জাগিয়েছে অনুপ্রেরণা ।

Back to top button