কাঁচা আম দিয়ে যেভাবে বাড়িতেই দারুণ সহজে ঘরোয়া উপায়ে ‘ম্যাংগো আইস ক্রিম’ বানাবেন, রইলো স্টেপ বাই স্টেপ পদ্ধতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- ইতিমধ্যে গ্রীষ্মকালের আগমন ঘটে গেছে এবং গ্রীষ্মকালে সামান্য পরিমাণ বাইরে বেরোলে আমরা যে জিনিসটি সবথেকে খেতে বেশি পছন্দ করি সেটি হল আইসক্রিম । আইসক্রিম এর বিভিন্ন ধরন রয়েছে । চকলেট আইসক্রিম ভ্যানিলা আইসক্রিম আলাদা আলাদা সাধের আইসক্রিম কিনতে পাওয়া যায় । কিন্তু সেই সমস্ত আইস্ক্রিম গুলি কি কি উপায়ে তৈরি হচ্ছে তা আমরা জানি না । যার ফলে একটা চিন্তা বা একটা সন্দেহ থেকেই যায় । শ-রীরের প-ক্ষে ক্ষ-তি করবে নাতো আইসক্রিম এরকম ধরনের প্রশ্ন বারবার থেকে যায় ।

সবথেকে ভালো হবে যদি আইসক্রিম আপনি বাড়িতে বানিয়ে খান । কিভাবে দোকানে মতন আইসক্রিম বানাবেন জানাবো আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে । তবে আজকের এই আইসক্রিম তৈরির পদ্ধতি বাকি সকল আইসক্রিমের থেকে কিছুটা হলেও আলাদা হতে চলেছে। কারণ এই আইসক্রিমে থাকবে আমের ভাগ। অর্থাৎ আম দিয়ে কিভাবে আইসক্রিম তৈরী করা যেতে পারে সেটি আজকে দেখে নেব এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে । আসুন দেখেনি কি কি উপকরণ লাগবে এবং কিভাবে তৈরি করতে হয় ।

প্রথমে আমি আম কে ছোট ছোট কিছু অংশে ভাগ করে নেব । এরপর সেই আমের টুকরোগুলোকে একটি ব্লে-ন্ডারে দেব এবং তার মধ্যে যোগ করে দেবো এক চামচ গুঁড়ো দুধ এবং এক কাপের মতন জল। তারপর ভালো করে ব্লে-ন্ড করে নিন পেস্ট তৈরি করে অন্য একটি পাত্রে তুলে রাখব । অপরদিকে একটি পাত্রে কিছুটা পরিমাণ ক্রিম নেবো এবং তার মধ্যে যোগ করে দেবো এক চামচ বা পরিমাণ মতন চিনি ।

তারপর ব্লে-ন্ডারে ভালো করে ব্লে-ন্ড করে নেব সেই ক্রিম কে ।তারপর ক্রিমের মধ্যে যোগ করে দেবো আগে থেকে ব্লেন্ড করে রাখা আমের মিশ্রণটি এর পর পুনরায় সেটি ভালো করে একটি চামচের সাহায্যে আইস কিউব এর মধ্যে রেখে ফ্রিজের মধ্যে রেখে দিতে হবে তিন থেকে চার ঘণ্টা । যার ফলে সেটি জমাট বেধে যাবে এবং তিন থেকে চার ঘণ্টা পর সেটি বের করে আপনি আইসক্রিমের মতন করে খেতে পারে ।

Back to top button