6 টি গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম জারি করা হল সমস্ত ব্যাংকে! না জানলেই পড়তে পারেন বিপদে! রইল বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আপনার কাছে যদি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে থাকে এবং ব্যাংকের যদি চেক বই থেকে থাকে বা আপনি যদি প্রবীণ নাগরিক হয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই এই প্রতিবেদন আপনার জন্য। কারণ এই প্রতিবেদনে পহেলা অক্টোবর থেকে জারি হওয়া বা পাল্টে যাওয়া নতুন নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো। তাই প্রতিবেদনটি সম্পূর্ণ পড়ার অনুরোধ রইল ।কারণ এখানে আপনি জানতে পারবেন যে ঠিক কি কি নিয়মের পরিবর্তন ঘটেছে।

১) পেনশন এক্ষেত্রে বড়োসড়ো পরিবর্তন আসতে চলেছে অক্টোবর মাসের প্রথম দিন থেকে ।।আমরা জানি যে চাকরি থেকে অবসর নেওয়ার পর একটি নির্দিষ্ট পরিমান টাকা পেনশন হিসেবে পাওয়া যায়। এবং পেনশন পেতে গেলে লাইফ সার্টিফিকেট জমা দিতে হতো এর আগে। তবে এবার থেকে ৮০ বছরের উর্ধ্বে লাইফ সার্টিফিকেট ডিজিটাল ভাবে জমা দেওয়া যাবে নিকটবর্তী যেকোনো ডাক ঘরে। আপনি আপনার লাইফ সার্টিফিকেট জমা দিয়ে ডিজিটাল হতে পারেন।

২) চেক বইয়ের ক্ষেত্রে এসেছে বড়োসড়ো পরিবর্তন । অনলাইনের এই যুগে এখনো পর্যন্ত এমন বহু মানুষ রয়েছে যারা চেকের ব্যবহার করে। ছোটখাটো ট্রানজেকশনের ক্ষেত্রে অনলাইন ব্যবহার করা হলেও বড় অংকের টাকার লেনদেনের ক্ষেত্রে সাধারণত চেক ব্যবহার করা হয় । তার পাশাপাশি যে সমস্ত মানুষের এটিএম নেই তারা কিন্তু চেকের মাধ্যমে টাকা লেনদেন করে । তবে অক্টোবর মাসের প্রথম থেকে এমনটা জানানো হচ্ছে যে এমন বেশ কিছু ব্যাংক রয়েছে যেগুলোর পুরনো চেকবই বাতিল হতে চলেছে।

৩) অক্টোবর মাসের প্রথম থেকেই পাল্টে যেতে চলেছে অর্থাৎ পরিবর্তন আসতে চলেছে অটো ডেবিট এ । কোন কিছুবিল পেমেন্ট বা সাবস্ক্রিপশন এক্ষেত্রে আর অটো ডেবিট করা যাবেনা । রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া তরফ থেকে এমনটাই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে । যাতে জালিয়াতি বন্ধ করা যায় তাই এই ধরনের পন্থা অবলম্বন করেছে তারা।

৪) স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া তরফ থেকে একটি নতুন নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে ।যেখানে জানানো হয়েছে যে মিউচুয়াল ফান্ড অফিসে কর্মরত কর্মচারী দের তাদের বেতনের ১০% শতাংশ মিউচ্যুয়াল ফান্ডে বিনিয়োগ করতে হবে ।

৫) এর পাশাপাশি জানানো হয়েছে আপনার যদি ড্রিমড একাউন্ট এবং ট্রেডিং অ্যাকাউন্ট থেকে থাকে তাহলে অতি অবশ্যই এই দুইটি একাউন্টে কেওয়াইসি লিংক করাতে হবে । নইলে আপনার স্টক মার্কেটে ট্রেড করতে পারবেন না ।এমনকি কোনো রকম কোনো ট্রানস্ফার করতে পারবেন না । এর সময়সীমা ৩১ শে জুলাই অব্দি ছিল তবে সেটি বাড়িয়ে ৩০ সেপ্টেম্বরের করা হয়েছিল তাই ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে যারা কেওয়াইসি করার নেই তাদের অ্যাকাউন্ট সম্পূর্ণ রকম ভাবে বন্ধ হয়ে যাবে ।

৬) অপরদিকে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া সিনিয়র সিটিজেনদের উপর ফিক্স ডিপোজিটের সুদের হার আরও কিছুটা বাড়া লো । ভারতের সবথেকে বড় রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া এমনটাই জানিয়েছে যে কোনো সিনিয়র সিটিজেন যদি পাঁচ বছরের জন্য ফিক্স ডিপোজিট করেন তাহলে ০.৮ শতাংশ হারে বেশি সুদ পাবেন সেই ব্যক্তি । এবং সর্বমোট সুদের পরিমাণ হবে ৬.২ শতাংশ।

Back to top button